fbpx
Monday, April 22, 2024
spot_imgspot_img
HomeTechস্মার্টফোনের ব্যাটারির আয়ু কমে যেসব কারণে

স্মার্টফোনের ব্যাটারির আয়ু কমে যেসব কারণে

স্মার্টফোনের ব্যাটারির আয়ু কমে যেসব কারণে

দৈনন্দিন জীবনে স্মার্টফোন অন্যতম সঙ্গী। ফোনকল, মেসেজ, ইন্টারনেট ব্রাউজিং থেকে শুরু করে এর মাধ্যমে অনেক কাজই করা যায়। ছবি-ভিডিও ধারণ করা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারসহ গেম খেলার অন্যতম মাধ্যম সেলফোন।

দীর্ঘ সময় টানা স্মার্টফোন ব্যবহারের কারণে ব্যাটারি দ্রুত শেষ হয়। একই ধরনের কাজ প্রতিনিয়ত করতে থাকলে ব্যাটারির আয়ুও কমতে থাকে। অনেকে কম ব্যাটারি নিয়েও স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকেন। এতে করে ব্যাটারির সেল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। দীর্ঘমেয়াদে তা স্মার্টফোনের ব্যাটারিতে প্রভাব ফেলে।

স্মার্টফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার উপায়

ব্যাটারির স্বাস্থ্য নিয়ে চিন্তামুক্ত থাকতে বেশ কিছু পদক্ষেপ মেনে চলতে পারেন। এতে করে ব্যাটারি দীর্ঘদিন ভালো থাকবে। পাশাপাশি ব্যাটারির ক্ষতি করে এমন কিছু কারণ সম্পর্কেওে জেনে নেয়া ভালো।

  1. অনেক ব্যবহারকারী রিংটোনের সঙ্গে ভাইব্রেশন চালু করে থাকেন। একইসঙ্গে দুটি কাজের জন্য ব্যাটারিতে অতিরিক্ত চাপ পড়ে। ফলে ব্যাটারি বেশি খরচ হয়। দীর্ঘমেয়াদে এর কারণে ব্যাটারির আয়ু কমে যায়। তাই খুব জরুরি না হলে রিংটোনের সঙ্গে ভাইব্রেশন না দেয়াই ভালো।
  2. সেলফোনে যে রিংটোন ব্যবহার করা হয় সেটিও ব্যাটারির আয়ু কমাতে পারে। তাই রিংটোন নির্বাচনে সতর্ক থাকতে হবে। বিশেষ করে ছোট রিংটোন ব্যবহার করতে হবে। ছোট রিংটোন বলতে যেগুলো প্লে টাইম ছোট। ফোনে বিল্ট ইন যেসব রিংটোন দেয়া থাকে সেগুলো ব্যবহার করাই ভালো। ডাউনলোড করা রিংটোনের ফ্রিকোয়েন্সি বেশি থাকে। যে কারণে এগুলো ব্যবহার করলে ব্যাটারি জলদি শেষ হয়ে যায়।
  3. চার্জ দেয়া অবস্থায় কোনোভাবেই স্মার্টফোন ব্যবহার করা যাবে না। জরুরি প্রয়োজন হলে চার্জ থেকে খুলে নিতে হবে। চার্জ দেয়া অবস্থায় অনেকে ফেসবুক মেসেঞ্জারসহ আরো অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন। এটি স্মার্টফোনের ব্যাটারির জন্য ক্ষতিকর। চার্জিংয়ের সময় ব্যাটারি সেল উত্তপ্ত হয়। সে সময় এর ব্যবহার সেলের ক্ষতি করবে। তাই চার্জ দেয়ার সময় কোনো কিছু ব্যবহার করা, মেসেজ পাঠানো বা গেম না খেলাই ভালো।
  4. ফোনে এমন অনেক অ্যাপ থাকে যেগুলো অপ্রয়োজনীয় এবং অনেক পুরোনো বা খুব একটা ব্যবহার করা হয়না। সে সকল অ্যাপ স্মার্টফোন থেকে ডিলিট করে দেয়াই উত্তম। সেলফোনে যত বেশি অ্যাপ থাকবে, তত বেশি ব্যাটারির উপরে চাপ বাড়বে। ফলে ফোনের ব্যাটারির আয়ু কমতে থাকবে। তাই প্রয়োজনীয় বা এখন ব্যবহার করছেন এমন অ্যাপগুলোই রাখুন ফোনে।
  5. ফোনের ব্যাটারির আয়ু বাড়াতে ফোনের অপ্রয়োজনীয় নোটিফিকেশন বন্ধ করে রাখুন। লোকেশন আপডেট, ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা অ্যাক্সেস বন্ধ রাখুন। এতে ব্যাটারির উপর চাপ কম পড়বে ফলে আয়ু বাড়বে। অনেকে ওয়াই-ফাই, মোবাইল ডাটা, ব্লুটুথসহ আরো অপশন চালু রাখেন। এগুলো ব্যাটারির জন্য ক্ষতিকর

আরো দেখুন:
হোয়াটসঅ্যাপে ব্যক্তিগত মেসেজ সংরক্ষণের উপায়

RELATED ARTICLES

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Elliana Murray on ONLINE SHOPPING
Discover phone number owner on Fake app চেনার উপায়